Sunday , April 22 2018
Breaking News
Home / জানা-অজানা / গার্লফ্রেন্ডের চাহিদা মেটাতে গিয়ে শ্রীঘরে বয়ফ্রেন্ড!

গার্লফ্রেন্ডের চাহিদা মেটাতে গিয়ে শ্রীঘরে বয়ফ্রেন্ড!

ভ্যালেনটাইনস ডে’র বা বিশ্ব ভালোবাসা দিবসের বাকি আছে আর মাত্র কয়েকদিন। প্রেমিক যুগলারা এই দিনটির জন্য সারা বছর অপেক্ষাই তাকিয়ে থাকেন।

বিশ্ব ভালোবাসা দিবস বা ভ্যালেনটাইনস ডে’র আগে অনেক সময় প্রেমিকদের কে প্রেমিকার আবদার মেটাতে নাজেহাল অবস্থায়ৎ পড়তে হয়। কিন্তু এটার জন্য ভারতের নয়ডার বাসিন্দা এক যুবক প্রেমিকার আবদার মেটাতে গিয়ে যা করলেন, তা সবাইকে চমকে দিয়েছে।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, ভারতের নয়ডার স্থানীয় বাসিন্দা এক প্রভাবশালী ব্যবসায়ী বেশ কয়েকদিন আগে পুলিশে অভিযোগ করেন। ওই ব্যবসায়ীর অভিযোগ ছিল, তাকে প্রায় প্রত্যেকদিন আননোন ফোন নাম্বার থেকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে। আর তার কাছ থেকে ১০ লাখ টাকা চাইছেন। এমনটিই অভিযোগ করেন ওই ব্যবসায়ী।

এরপরে ফোন কলের সূত্র ধরে নয়ডার বাসিন্দা মনীষ নামে এক যুবককে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয় পুলিশ। পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদ কালে আটককৃত ওই যুবক নিজের দোষ স্বীকার করে। আর সে যে স্বীকারোক্তি দিয়েছে সেটা শুনে অবাক হন তদন্তকারী কর্মকর্তাগণ।

তদন্তে জানা যায়, আসন্ন বিশ্ব ভালোবাসা দিবসে ওই যুবকের গার্লফ্রেন্ড তার কাছে একটি স্কুটি কিনে দেয়ার আবদার রাখেন। মজার ঘটনা হচ্ছে আটককৃত মনীষের আর্থিক সামর্থ্য অতো ভালো নয়। যা দিয়ে সে গার্লফ্রেন্ডকে স্কুটি কিনে দেবে। তাই প্রেমের সম্পর্ক টিকিয়ে রাখতে মনীষ যে পদ্ধতি অবলম্বণ করেন, তা সত্যিই অভিনব।

এ ঘটনায় পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়, নয়ডার স্থানীয় বাসিন্দা এক প্রভাবশালী ব্যবসায়ীর কাছে আননোন নাম্বার প্রতিদিন ফোন করে হুমকি দিতো ওই যুবক (প্রেমিক মনীষ)। মনীষের টার্গেট ছিল ওই ব্যবসায়ীর থেকে ১০ লাখ টাকা পেলে গার্লফ্রেন্ডকে একটি স্কুটি কিনে দেয়ার পাশাপাশি নিজের জন্য একটি দামী মোবাইল ফোনও কিনবে সে। ওই যুবকের গার্লফ্রেন্ডকে নিয়ে শপিং করার পরিকল্পনাও ছিল। হুমকি দেওয়ার এ ঘটনায় মনীষের পাশাপাশি গ্রেফতার করা হয়েছে আমির নামে তার এক বন্ধুকে। কেননা, মনীষের ওই বন্ধু হুমকি দেওয়ার ঘটনায় সাহায্য করেছেন, এই অভিযোগে তাকেও আটক করা হয়।

Loading...